ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম

অনেকে রয়েছেন নতুন ভোটার নিবন্ধন করেছেন, তবে এখনো ভোটার আইডি কার্ড হাতে পায় নি। তারা চাইলে তাদের সাথে থাকা ভোটার স্লিপ নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করতে পারবেন। এরপর এই অনলাইন ভোটার আইডি কার্ড টি দিয়ে আপনি সিম রেজিষ্ট্রেশন, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট খোলা থেকে শুরু করে প্রায় সকল ধরণের কাজ গুলোই সম্পন্ন করতে পারবেন। 

ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করার নিয়ম টি তুলনামূলক অনেকটাই সহজ, এর জন্য আপনাকে তেমন কঠিন কিছুই করতে হবেনা। নিচে আমরা ধাপে ধাপে প্রত্যেকটি প্রসেস শেয়ার করেছি কিভাবে শুধুমাত্র ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করবেন তার সব কিছুই। তো চলুন শুরু করা যাক।

ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড বের করার নিয়ম

ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড
ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

আপনার ভোটার আইডি হালনাগাদ সময়ে ফরম টি জমা দেয়ার পর আপনাকে একটি ছোট স্লিপ নম্বর দেয়া হয়েছিলো, সেটি স্লিপে টি প্রথমে নিন, এরপরে নির্বাচন কমিশনের মূল ওয়েবসাইট অর্থাৎ services.nidw.gov.bd তে ভিজিট করুন। 

এবার আপনার কাছে থাকা সেই স্লিপ বা ফরমে থাকা নম্বর, জন্ম তারিখ এবং আনুষাঙ্গিক তথ্য গুলো দিয়ে আপনাকে একটি অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। এবার সেই অ্যাকাউন্টে লগ-ইন করে আপনার অনলাইন ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড সহ অন্যান্য তথ্য গুলো যাচাই করতে পারবেন। 

ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড

এই অংশে আমরা সম্পূর্ণ প্রসেস টি ধাপে ধাপে আলোচনা করবো আরো বিস্তারিত ভাবে। তাই প্রত্যেকটি অংশ খুব ভালোভাবে পর্যবেক্ষণ করুন, যাতে সহজেই বুঝতে পারেন। 

নোটঃ আপনার ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য মূলত আপনার ২টি স্মার্ট ফোনের প্রয়োজন হবে, অথবা একটি স্মার্ট ফোন এবং একটি কম্পিউটারের প্রয়োজন হবে। 

  • ধাপ ১ঃ প্রথমে আপনাকে একটি স্মার্ট ফোনে Google Play Store এ যেতে হবে এবং সেখান থেকে NID Wallet অ্যাপটি Install করে রাখতে হবে।
ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড
  • ধাপ ২ঃ এবার অন্য আরেকটি ফোন অথবা কম্পিউটারের ব্রাউজারে গিয়ে services.nidw.gov.bd ভিজিট করতে হবে। এরপরে সেখানে আপনার কাছে থাকা ভোটার ফরম বা স্লিপটিতে থাকা নম্বর ও আপনার ভোটার আইডি নিবন্ধনে দেয়া জন্ম তারিখ টি সাবমিট করুন, পাশাপাশি আপনার স্থায়ী ও বর্তমান সম্পূর্ণ ঠিকানা বাছাই করার পর আনুষাঙ্গিক তথ্য গুলো সঠিক ভাবে দিন।
টোকেন নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড
  • ধাপ ৩ঃ সব ঠিকঠাক ভাবে সম্পূর্ণ করার পর এবার আপনার ফোন নাম্বার ভেরিফিকেশনের জন্য আপনার ফোন নম্বার টি দিতে হবে। ফোন নাম্বার সাবমিট করার পর “বার্তা পাঠান” এ ক্লিক করুন। এরপরে আপনার নম্বরে এসএমএস এর মাধ্যমে একটি কোড পাঠানো হবে সেটি সাবমিট করুন এবং বহালে ক্লিক করুন। 
কিভাবে আপনার ফেইস ভেরিফিকেশন করবেন
  • ধাপ ৪ঃ এবার আপনার ফোনের বা কম্পিউটারের স্ক্রিনে একটি QR কোড দেখাবে। এখন আপনার প্রথম ফোনটি হাতে নিতে হবে, যেটিতে আপনি NID Wallet অ্যাপ টি ইনস্টল করেছিলেন। এবার সেখান থেকে NID Wallet অ্যাপ টি অপেন করুন। অপেন করার পরে সেখানে QR কোন স্ক্যান করার অপশন আসবে, এবার ফোনটিকে QR কোডের সামনে ধরুন এবং স্ক্যান সম্পন্ন করুন। 
download-nid-card-with-form-number
  • ধাপ ৫ঃ এখন আপনার ফোনের স্ক্রিনে আপনার ফেইস ভেরিফিকেশন করতে বলবে, এবং একটি প্রিভিউ দেখাবে কিভাবে আপনার ফেইস ভেরিফিকেশন করবেন সেটি বুঝার জন্য। এবার ফোনটিকে আপনার চেহারার সোজাসুজি অবস্থায় ধরুন এবং Start Face Scan এ ক্লিক করুন। এরপরে ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে আপনার মাথা একবার ডানে এরপরে সোজাসাপ্টা এবং এরপরে বাম দিকে করুন। এভাবে আপনার ফেইস ভেরিফিকেশন সম্পন্ন হয়ে যাবে এবং আপনার অ্যাকাউন্টে লগইন হয়ে যাবে। 

সর্বশেষ এখন আপনার অ্যাকাউন্টের থেকে ডাউনলোড অপশনে যেতে হবে এবং সেখান থেকে আপনার কার্ডটি ডাউনলোড করতে পারবেন সহজেই। PDF ফরমেটের NID কার্ডটি যেকোন যায়গা থেকে রঙিং এবং ফটোকপি করে প্রিন্ট করতে পারবেন এবং স্মার্ট কার্ড হাতে পাওয়ার আগে পর্যন্ত যেকোন ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারবেন।

ভোটার ফরম নম্বর হারিয়ে গেলে করণীয়ঃ

মূলত আপনার ভোটার নিবন্ধন শেষে যে স্লিপ টি বা টোকেন নম্বর টি দেয়া হয়, সেটি যদি কোন ভাবে হারিয়ে যায় তাহলে আপনাকে প্রথমে আপনার নিকটস্থ থানায় গিয়ে এ ব্যপারে জিডি করতে হবে।

এরপরে থানা থেকে আপনাকে জিডির কপি টি নিয়ে আপনার উপজেলা নির্বচন কমিশন অফিসে গিয়ে জমা দিতে হবে এবং সেখান থেকে আপনার হারিয়ে যাওয়া টোকেন নম্বর টি বের করতে পারবেন এবং জাতীয় পরিচয় পত্রটিও বের করে নিতে পারবেন। 

সর্বশেষ কথা

ভোটার আইডি কার্ডের জন্য নিবন্ধন সম্পন্ন হওয়ার পর যে কারোর ই প্রথম দায়িত্ব হলো টোকেন নম্বর অথবা ভোটার নিবন্ধনের ফরম নম্বর টি খুব যত্ন করে রাখা। কারণ এটি আপনার প্রয়োজন হবে ফরম নম্বর দিয়ে ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার সময়ে পাশাপাশি আপনি যখন আপনার স্মার্ট কার্ড টি আনতে যাবেন তখনও। 

আশাকরি আমাদের টিউটোরিয়াল টি আপনাকে অনেকটাই সাহায্য করেছে সহজেই আপনার ভোটার আইডি কার্ড ডাউনলোড করার জন্য।

আরও পড়ুনঃ 

Sharing is Caring: